1. etcnews2022@gmail.com : etcnews :
মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবীতে ভৈরব সাংবাদিক সমাজের “মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা” কুলিয়ারচরে যুবলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও আমেরিকা প্রবাসী এক নেতাকে মারধরের অভিযোগ  গাজাঁ পাচারকালে ভৈরব থেকে এক মাদক কারবারি আটক ভৈরবে দিনে দুপুরে ডাকাতির ঘটনায় স্বর্ণ ব্যাবসায়ীদের কর্মবিরতি ভৈরবে জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান কাজলকে গণসংবর্ধনা ভৈরবে বিচারপতি পরিবারের পক্ষ থেকে অসহায় শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ বাংলাদেশ-নেপাল ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটির পুনরায় সভাপতি লায়ন মশিউর আহমেদ কিশোরগঞ্জের পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিলল রেকর্ড ৪ কোটি ১৮ লাখ টাকা ভৈরবে তিন দিনব্যাপী বইমেলা পরিষদের রজতজয়ন্তী উদযাপন  ভৈরবে ট্রেনের ইঞ্জিনের ধাক্কায় বগি লাইনচূত ও ক্ষতিগ্রস্ত 
ব্রেকিং নিউজ
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবীতে ভৈরব সাংবাদিক সমাজের “মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা” কুলিয়ারচরে যুবলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও আমেরিকা প্রবাসী এক নেতাকে মারধরের অভিযোগ  গাজাঁ পাচারকালে ভৈরব থেকে এক মাদক কারবারি আটক ভৈরবে দিনে দুপুরে ডাকাতির ঘটনায় স্বর্ণ ব্যাবসায়ীদের কর্মবিরতি ভৈরবে জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান কাজলকে গণসংবর্ধনা ভৈরবে বিচারপতি পরিবারের পক্ষ থেকে অসহায় শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ বাংলাদেশ-নেপাল ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটির পুনরায় সভাপতি লায়ন মশিউর আহমেদ কিশোরগঞ্জের পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিলল রেকর্ড ৪ কোটি ১৮ লাখ টাকা ভৈরবে তিন দিনব্যাপী বইমেলা পরিষদের রজতজয়ন্তী উদযাপন  ভৈরবে ট্রেনের ইঞ্জিনের ধাক্কায় বগি লাইনচূত ও ক্ষতিগ্রস্ত 

১৯ ডিসেম্বর ভৈরব মুক্ত দিবস

  • প্রকাশকাল সোমবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ১২ পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

সারা বাংলাদেশ ১৬ ডিসেম্বর মুক্ত হলেও ভৈরব মুক্ত হয় ১৯ ডিসেম্বর। ৪৯ বছর আগে ১৯৭১ সালের এই দিনে বন্দরনগরী ভৈরবে পাক হানাদার বাহিনী অসংখ্য নারী-পুরুষ, আবাল-বৃদ্ধ বনিতাকে নির্বিচারে হত্যা, মা-বোনদের ইজ্জত লুট এবং ভৈরব বাজার ও গ্রামগুলোকে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দিয়ে নিজেদের শেষ রক্ষা করতে পারেনি। অবশেষে তারা মিত্র বাহিনী ও ভৈরবের দামাল ছেলেদের হাতে আত্মসর্মপন করতে বাধ্য হয়।

পাক হানাদার বাহিনী ১৯৭১ সালের সারা দেশের ন্যায় ভৈরবেও নারকীয় হত্যাযজ্ঞ শুরু করে। তাদের দোসর আলবদর, রাজাকার ভৈরব বাজারের তিন ভাগের দুই ভাগ জ্বালিয়ে এবং ব্যব্সায়ীদের সিন্দুক ভেঙ্গে টাকা পয়সা ও মালামাল লুট করে এবং ভৈরবের বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গকে ধরে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলে।

বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহীদ হাবিলদার আব্দুল হালিম রেলওয়ে সেতুর পূর্ব পাশে একটি ও পশ্চিম পার্শে দুটি স্পেন ডিনামাইট দিয়ে উড়িয়ে মিত্র বাহিনীর অগ্র যাত্রাকে ব্যহত করার প্রয়াস চালায়। ১৬ ডিসেম্বর পাক হানাদারদের প্রধান জেনারেল নিয়াজী তার দলবলসহ আত্মসর্মপন করলেও ভৈরব পাক হানাদার বাহিনী সেই খবর পায়নি। ফলে ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত পাক হানাদারদের সাথে ছোট খাটো সংঘর্ষ চলতে থাকে ভৈরবের মুক্তিযোদ্ধাদের।

১৯ ডিসেম্বর পাক হানাদারদের হাই কমান্ডের নির্দেশ পাওয়ার পর আত্মসর্মপনের পূর্ব মুহুর্তে তৎকালীন ন্যাশনাল ব্যাংক বর্তমানে সোনালী ব্যাংকের রক্ষিত টাকা পয়সা লুটপাট করে নিয়ে ডিনামাইট দিয়ে উড়িয়ে দেয়। এছাড়াও আবাসিক এলাকার ঘর-বাড়িতে লুটপাট চালায় তারা। ১৯ ডিসেম্বর তারা আত্মসর্মপন করতে বাধ্য হয়।

এভাবে একটি অধ্যায়ের সমাপ্তি এবং ভৈরবের মানুষ পাকিস্তানি পতাকাকে পদদলিত করে বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করে। স্বাধীনতার মুক্তির স্বাদ লাভ করে। ভৈরবের মানুষ প্রতি বছরই এ দিনটিকে শ্রদ্ধা ভরে স্বরণ করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এধরণের অন্যান্য সংবাদ

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি                    

একটি দৃশ্যপট মিডিয়া লিঃ

 
কারিগরি সহায়তায়- White NS

প্রযুক্তি সহায়তায় BTMAXHOST